শিরোনাম :

ইসরায়েলির সরকারবিরোধী বিক্ষোভ অব্যাহত


২৯ জানুয়ারি, ২০২৩ ৯:২৫ : অপরাহ্ণ

টানা চতুর্থ সপ্তাহের মতো ইসরায়েলে ডানপন্থী সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। হাজারো ইসরায়েলি দেশটিতে বিক্ষোভ করছেন।

শনিবার বিক্ষোভকারীরা তেল আবিবের কাপলান সড়কে পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ করেন। তারা স্বৈরতন্ত্রকে না ও গণতন্ত্র বলতে বলতে স্লোগান দেন।

নতুন সরকারের প্রস্তাবিত পরিবর্তন যা বিচার বিভাগকে দুর্বল করে দেবে, তার বিরুদ্ধেই গত সপ্তাহগুলোতে দেশটিতে বিক্ষোভ চলে।

আইনমন্ত্রী জারিভ লেভিন পরিকল্পনা নিয়ে বলেন, পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠরা আইন পাস করতে পারবেন, যদিও সুপ্রিম কোর্টের মতে এটি আইনের লঙ্ঘন করে।

বিচারক নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ গঠনের ক্ষেত্রেও লেভিন পরিবর্তন আনতে চান। সুদূরপ্রসারী এসব পরিবর্তনের ফলে প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু নিজের বিরুদ্ধে থাকা দুর্নীতির অভিযোগের বিচারে প্রভাব বিস্তার করতে পারেন।

নেতানিয়াহুর অভিযোগ, সুপ্রিম কোর্ট রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে অত্যধিক পরিমাণে হস্তক্ষেপ করে। বিশেষজ্ঞদের অনেকে এরইমধ্যে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, পরিকল্পনার বাস্তবায়ন হলে দেশে গণতন্ত্রের ইতি ঘটবে।

বিক্ষোভকারীদের অনেকে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে ইসরায়েলের আচরণ নিয়ে সমালোচনা করেছেন। একটি কাগজে লেখা থাকতে দেখা যায়, দখলে গণতন্ত্র নেই।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে সরকারের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে বিক্ষোভ চলছে। গেল ২১ জানুয়ারি তেল আবিবে এক লাখেরও বেশি মানুষ বিক্ষোভ করেন।

শুক্রবার অধিকৃত পশ্চিম জেরুজালেমের এক উপাসনালয়ে সাতজন নিহত হলে এই সপ্তাহে আবারো বিক্ষোভ শুরু হয়। শনিবার জেরুজালেমের ওল্ড সিটির কাছে ১৩ বছর বয়সী এক শিশুর গুলিতে দুজন গুরুতর আহত হন।

এদিকে বৃহস্পতিবার অধিকৃত পশ্চিম তীরের শহর জেনিনে ইসরায়েলের সামরিক অভিযানে কমপক্ষে ৯ ফিলিস্তিনি নিহত হন। এই ঘটনায় অনেকে আহত হন। সব মিলিয়ে এই মাসে ইসরায়েলি বাহিনী ৩২ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে।

আরো সংবাদ