ই-পেপার | শুক্রবার , ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
×

ফৌজদারী অভিযোগ রাষ্ট্রের অপমান : ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মঙ্গলবার নিউইয়র্কের আদালতে আত্মসমর্পণ শেষে ফ্লোরিডায় ফিরে গেছেন।ফৌজদারী অপরাধে অভিযুক্ত হওয়ার পর এ প্রথম প্রকাশ্যে মন্তব্যে ট্রাম্প আত্মপক্ষ সমর্থন করে বলেছেন, তার বিরুদ্ধে এ ফৌজদারী অভিযোগ দেশকে অপমান করার শামিল।

নিউয়র্কের আদালতে শুনানিকালে ৭৬ বছর বয়সী ট্রাম্প স্পষ্ট ভাষায় নিজেকে নির্দোষ দাবী করেন।
এরপর ফ্লোরিডার দক্ষিণাঞ্চলে তার মার-এ লাগোর প্রাসাদে ফিরে কয়েকশ ডোনার, রাজনৈতিক মিত্র ও সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, আমি কখনই ভাবি নি আমেরিকায় এ ধরনের কিছু ঘটতে পারে…কখনই ভাবিনি।ট্রাম্প বলেছেন, আমরা একমাত্র অপরাধ হলো যারা ধ্বংস করতে চেয়েছে তাদের কাছ থেকে নির্ভয়ে আমাদের জাতিকে রক্ষা করা। এই ফৌজদারী অভিযোগ দেশের অপমান।
যুক্তরাষ্ট্রের ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্প রিপাবলিকান দলের মনোনয়নে এগিয়ে রয়েছেন। আমেরিকান পতাকা ও বেলুনে শোভিত বলরুমের স্টেজে দাঁড়িয়ে ট্রাম্প আরো বলেন, এসব উগ্রবাম প্রসিকিউটররা তাকে যে কোন মূল্যে নির্বাচনের বাইরে রাখতে চায়।
উল্লেখ্য, ডোনাল্ড ট্রাম্প সাবেক পর্নো তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলস এর সাথে সম্পর্কের কথা ধামাচাপা দিতে ঘুষ দেওয়ার মামলায় অভিযুক্ত হন। এ প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রের কোন সাবেক প্রেসিডেন্ট ফৌজদারি অভিযোগে অভিযুক্ত হলেন।

সাবেক পর্নো তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলস দাবি করেন ২০০৬ সালে তার সাথে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।এর ১০ বছর পর ২০১৬ সালে ট্রাম্প যখন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করবেন তখন স্টর্মি ড্যানিয়েলস মিডিয়ার কাছে সম্পর্কের ব্যাপারে মুখ খুলতে চান। মুখ বন্ধ করাতে আইনজীবীর মাধ্যমে ড্যানিয়েলসকে ১ লাখ ৩০ হাজার ডলার দেন ট্রাম্প। এভাবে অর্থ দেয়া আইনের দৃষ্টিতে অবৈধ নয়। কিন্তু বিপত্তি বাধার কারণ, ট্রাম্প ওই ১ লাখ ৩০ হাজার ডলারকে আইনি খরচ হিসেবে দেখিয়েছেন; ফলে তার বিরুদ্ধে ব্যবসায়িক হিসাব জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনা ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ঠিক আগে আগে ঘটায় নির্বাচনি আইন ভঙ্গেরও অভিযোগ উঠেছে।

এ প্রেক্ষিতে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হবে কিনা সে সিদ্ধান্ত নেয়ার দায়িত্ব ছিল নিউইয়র্ক সিটির ডিস্ট্রিক্ট অ্যার্টনি অ্যালভিন ব্র্যাগের ওপর। ট্রাম্পের বিরুদ্ধে তদন্তের জন্যে তিনি গ্রান্ড জুরি গঠন করেন। গত ৩০ মার্চ এ জুরি ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের সিদ্ধান্ত জানায়।

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ব্যবসা সংক্রান্ত ভূয়া তথ্য দেয়া সহ মোট ৩৪টি অভিযোগ আনা হয়েছে। আগামী ৪ ডিসেম্বর মামলার শুনানীতে ট্রাম্পকে সশরীরে হাজির থাকার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।