শিরোনাম :

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ নির্মাণ ও উৎক্ষেপণে সহযোগিতা করতে এয়ারবাস’র আগ্রহ প্রকাশ


২৪ জুলাই, ২০২৩ ৬:০৮ : অপরাহ্ণ

ফ্রান্সের আন্তর্জাতিক মহাকাশযান নির্মাণ প্রতিষ্ঠান এয়ারবাস বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ নির্মাণ ও উৎক্ষেপণে বাংলাদেশকে সহযোগিতা করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। রোববার সচিবালয়ে নিজ দফতরে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সাথে ঢাকায় নিযুক্ত ফ্রান্স দূতাবাসের ডেপুটি হেড অব মিশন গিয়োম অধ্রা দ্যো কোরধ্রেরের নেতৃত্বে এয়ারবাস’র তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল সাক্ষাৎ করে এই আগ্রহের কথা জানায়।

সাক্ষাতকালে তারা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট -২ তৈরি, উৎক্ষেপণ এবং অরবিটাল স্লট বরাদ্দ এবং স্যাটেলাইটটির ধরনসহ বিস্তারিত বিষয়াদি নিয়ে মত বিনিময় করেন।এ সময় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি সম্পন্ন ও গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশে গত সাড়ে ১৪ বছরে ডিজিটাইজেশনের ধারাবাহিকতায় বিস্ময়কর অগ্রগতি হয়েছে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১-এর সফল উৎক্ষেপণ বর্তমান সরকারের অন্যতম অর্জন। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ পরিণত হয়েছে স্যাটেলাইট ক্লাবের ৫৭ তম গর্বিত সদস্যে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ দেশের টেলিভিশন চ্যানেলসমূহের সম্প্রচারসহ দুর্গম অঞ্চলে ডিজিটাল সংযোগ স্থাপন ও প্রাকৃতিক দুর্যোগকালীন সময়ে নিরবচ্ছিন্ন ডিজিটাল সংযোগ স্থাপনে অভাবনীয় ভূমিকা রাখছে।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট -২ এর প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, এটি হবে আর্থ অবজারভেটরি স্যাটেলাইট। তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারে দেশের দ্বিতীয় স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের ঘোষণা বাস্তবায়নে আমরা কাজ করছি। ২০১৮ সালের নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়নের ধারাবাহিকতায় ২০২১ সালের ১২ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ফাইভ-জি যুগে প্রবেশ করেছে। তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল সংযোগ স্থাপনের কার্যক্রম চলছে।’ মন্ত্রী বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট -১ নির্মাণ ও উৎক্ষেপণে ফ্রান্সের অবদান শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন।

ডেপুটি হেড অব মিশন ডিজিটাল প্রযুক্তির বিকাশে বাংলাদেশের অগ্রগতির প্রশংসা করেন। প্রতিনিধিদলের অপর সদস্যরা হলেন, এয়ারবাস এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট স্টিফেন ভেসবাল ও প্রধান প্রতিনিধি মোরাদ বউরোফেলা।

আরো সংবাদ