চট্টগ্রাম   রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১  

শিরোনাম

চকরিয়ার আদালতে বিচারক নেই,বাড়ছে মামলা জট,বিচারপ্রার্থীরা দূর্ভোগের শিকার ! 

এম,নুরুদ্দোজা,চকরিয়া:    |    ০৪:৫৩ পিএম, ২০২০-০৯-২৬

চকরিয়ার আদালতে বিচারক নেই,বাড়ছে মামলা জট,বিচারপ্রার্থীরা দূর্ভোগের শিকার ! 

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের বিচারক নেই এক বছর ধরে। এতে ভোগান্তি পোহাচ্ছে দুই উপজেলার মানুষ। পাশাপাশি এই আদালতে ঝুলে আছে অন্তত সাড়ে চার হাজার মামলা। 
চকরিয়া সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের সেরেস্তাদার তুষার কান্তি ধর বলেন, ২০১৯ সালের ২৭ আগস্ট আইন মন্ত্রণালয়ে বদলী হন চকরিয়া সিনিয়র সহকারী জজ আব্বাছ উদ্দিন। তিনি বদলী হওয়ার পর নতুন বিচারক পদায়ন না হওয়ায় মামলাজট বাড়ছে। এখন ৪৪৫১ টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।’
জানতে চাইলে চকরিয়া আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সহকারি পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) এ এইচ এম শহীদুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আমরা একাধিকবার জেলা জজের সঙ্গে সরাসরি দেখা করেছি। একাধিকার লিখিত আবেদনও দিয়েছি। এরপরও চকরিয়া সিনিয়র সহকারী জজ পদায়ন করা হচ্ছে না। বিচারক পদায়ন না হওয়ায় দেওয়ানী মামলার বিচারপ্রার্থীদের ভোগান্তি বেড়েই চলেছে। 
পেকুয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের গোঁয়াখালী গ্রামের মৃত রশিদ আহমদের ছেলে আবুল হোসেন বলেন, ‘২০০৬ সালে জমি সংক্রান্ত একটি মামলা দায়ের করি। মামলাটি ২০১৯ সালের জুলাই মাসে শেষ পর্যায়ে চলে আসে। এরপর থেকে বিচারক না থাকায় মামলার রায় হচ্ছে না। প্রতি মাসে চকরিয়া আদালতে এসে মামলার খোঁজ নিতে হয়। এতে ভোগান্তিতে পড়েছি।’
লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের রোস্তম আলী চৌধুরী পাড়ার ছরওয়ার কামাল বলেন, ‘এক জনের সঙ্গে ৪০ শতক জমি নিয়ে বিরোধ চলছে দেড় বছর ধরে। এ নিয়ে চকরিয়া সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করি। পাঁচ মাস আগে করোনার সময় রাতের আঁধারে ভূমিদস্যুরা আমার জমিটি দখল করে নেন। বিচারক না থাকায় জমি দখলের বিষয়ে কোনো আইনগত পদক্ষেপ নিতে পারিনি।’
কয়েকজন আইনজীবী ও ভুক্তভোগী লোকজন বলেন, বিচারাধীন মামলায় তাৎক্ষনিক পদক্ষেপ (নিষেধাজ্ঞা) নিতে না পারায় চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলায় ভূমিদস্যুদের ততপরতা বেড়েছে। এছাড়াও পারিবারিক আদালতের মামলায় জঠিলতা সৃষ্টি হচ্ছে। চ’ড়ান্ত রায়ের পর আসামীপক্ষ মোহরানার টাকা জমা দিলেও বিচারক না থাকায় ভুক্তভোগী সেই টাকা তুলতে পারছেন না।
এক নারীর অভিযোগ, তাঁর স্বামী তাকে ডিভোর্স দিয়েছেন। কিন্তু বিচারক না থাকায় তিনি মোহরানার জন্য মামলা করতে পারছেন না। আরেক নারী বলেন, মোহরানার টাকা পাওয়ার জন্য মামলা করলে আদালত মাসিক কিস্তিতে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা জমা দেওয়ার আদেশ দেন। সেই আদেশের পর কয়েক কিস্তির টাকা জমা দিলেও বিচারক না থাকায় এক বছরের বেশিসময় ধরে সেই টাকা উত্তোলন করতে পারছেন না এবং আসামী পক্ষ টাকা জমাও দিতে পারছেন না।
চকরিয়া আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক বলেন, বিচারকের পদ শূন্য থাকায় মামলার বাদী-বিবাদীরা বেশ হয়রানির শিকার হচ্ছেন। দ্রুত এই আদালতে একজন সহকারী জজ পদায়ন করা প্রয়োজন। তিনি বলেন, চকরিয়া অনেক পুরোনো উপজেলা। এছাড়া ভৌগলিকভাবেও গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে। এ জন্য চকরিয়ায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ও যুগ্ম জেলা জজ আদালত স্থাপনের দাবি করছি, যাতে চকরিয়া ও পেকুয়ার অন্তত লাখো মানুষ উপকৃত হয় । 

রিটেলেড নিউজ

মীরসরাইয়ের শেখ মোহাম্মদ মোরশেদ

মীরসরাইয়ের শেখ মোহাম্মদ মোরশেদ "অতিরিক্ত এটর্নি জেনারেল" পদে নিয়োগ

মোহাম্মদ মাসুদুজ্জামান (রাজীব), মীরসরাই : : মীরসরাই উপজেলার ১১নং মঘাদিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের শেখ টোলা গ্রামের কৃতি সন্তান সুপ্রিমকোর্টের ...বিস্তারিত


বান্দরবানের আলীকদমে বন্য হাতির আক্রমণে হতাহত ৩

বান্দরবানের আলীকদমে বন্য হাতির আক্রমণে হতাহত ৩

বান্দরবান প্রতিনিধি : : বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার চৈক্ষ্যং ইউনিয়নে কানা মাঝি কোনাপাড়া আর্মি ক্যাম্প এলাকায় বন্য হাতির ...বিস্তারিত


অবশেষে বীর মুক্তিযােদ্ধা হারুন আল জাফর চৌধুরীর  নামে সড়কের নামকরণ

অবশেষে বীর মুক্তিযােদ্ধা হারুন আল জাফর চৌধুরীর  নামে সড়কের নামকরণ

রিমন রশ্মি বড়ুয়া : : চট্টগ্রামের খানহাট-ধােপাছড়ি-বান্দরবান জেলা মহাসড়কের হাসিমপুর ইউনিয়ন অংশ পর্যন্ত ৩ কিলােমিটা...বিস্তারিত


উচ্ছেদ আতঙ্কে চার শতাধিক পরিবার, বিকল্প পথে সড়ক নির্মানের দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

উচ্ছেদ আতঙ্কে চার শতাধিক পরিবার, বিকল্প পথে সড়ক নির্মানের দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

চকরিয়া প্রতিনিধি : : কক্সবাজারের মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্র বন্দর সংযোগ সড়ক প্রকল্পের আওতায় চকরিয়ার ফাঁসিয়াখালীর হাসেরদী...বিস্তারিত


রাউজানে যুবকের মরদেহ উদ্ধার

রাউজানে যুবকের মরদেহ উদ্ধার

রাউজান প্রতিনিধি : : রাউজানে পুকুর থেকে মো. জামাল নামে ৪২ বছর বয়সী এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।   শনিবার (২৩ জা...বিস্তারিত


ফটিকছড়িতে বনবিভাগের উচ্ছেদ অভিযানে কোটি টাকা মুল্যের বনভুমি উদ্ধার

ফটিকছড়িতে বনবিভাগের উচ্ছেদ অভিযানে কোটি টাকা মুল্যের বনভুমি উদ্ধার

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি : : ফটিকছড়ি উপজেলার শোভনছড়ি বনবিট এলাকায় বন বিভাগের সংরক্ষিত বনাঞ্চল থেকে অবৈধ বসতি উচ্ছেদ করে কোটি ...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

আসন্ন পটিয়া পৌর নির্বাচনে দল চাইলে মেয়র পদে প্রার্থী হবেন তৌহিদুল আলম

আসন্ন পটিয়া পৌর নির্বাচনে দল চাইলে মেয়র পদে প্রার্থী হবেন তৌহিদুল আলম

পটিয়া প্রতিনিধি : : বাংলাদেশ ফ্রেশ ফ্রুটস ইমপোর্টার্স এসোসিয়েশনের কেন্দ্রিয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক পটিয়া ...বিস্তারিত


আসন্ন পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বড় দুই দল সহ অনেকই মনোনয়ন দৌড়ে

আসন্ন পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বড় দুই দল সহ অনেকই মনোনয়ন দৌড়ে

মুহাম্মদ রুশনী মোবারক, পটিয়া : : আগামী নভেম্বর ২০২০ ইং মাস থেকে ধারাবাহিকভাবে নির্বাচনী কার্যক্রম শুরু হবে, চলবে জানুয়ারি-ফেব্রুয়...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর