চট্টগ্রাম   বৃহস্পতিবার, ৬ মে ২০২১  

শিরোনাম

পটিয়ায় ঐতিহ্যের ধারক বাহক মৃৎশিল্প বিলুপ্তির পথে

মুহাম্মদ রুশনী মোবারক, পটিয়া :    |    ০৫:৩৬ পিএম, ২০২০-০৯-০৫

পটিয়ায় ঐতিহ্যের ধারক বাহক মৃৎশিল্প বিলুপ্তির পথে

চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার প্রাচীন ঐতিহ্যের ধারক-বাহক কুমার শিল্প বা মৃৎশিল্প অর্থাৎ মাটির তৈরি জিনিসপত্র এখন বিলুপ্তির পথে। সরকারি-বেসরকারি পৃষ্ঠপোষকতা, মাটি ও উপকরণ সংকট, তৈরি ব্যয় 
বৃদ্ধি পাওয়া, লাভজনক না হওয়া ও বাজারে প্লাস্টিকের তৈরি বিভিন্ন ব্যবহারিক জিনিসপত্রে সয়লাব হওয়ায় বিলুপ্তির পথে, দেশের এক সময়ের চিরচেনা মৃৎশিল্প। সেই সঙ্গে হারিয়ে গেছে মাটির তৈরি বিভিন্ন পণ্যের পসরা সাজানোর দোকান।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, পটিয়া উপজেলার মৃৎশিল্প তৈরির কারিগর কুমার সম্প্রদায়ের পরিবারগুলোর সদস্যদের মাঝে চলছে নানা অভাব-অনটন ও চরম হতাশা। তারা এখন বেকার সময় কাটাচ্ছে। কারণ তাদের তৈরি মাটির পণ্য এখন বাজারে বিক্রি না হওয়ায় বদলে যাচ্ছে কুমারপাড়ার জীবনের চালচিত্র।

জানা যায়, পটিয়া উপজেলার কচুয়াই ইউনিয়নের অলীরহাট এলাকার রুদ্রপাড়ায় এ পেশার সঙ্গে জড়িত ছিল প্রায় শতাধিক পরিবার। বর্তমানে হাতেগোনা ৫-৬ পরিবার কোনো রকমে পূর্বপুরুষের ঐতিহ্যকে টিকিয়ে রাখতে মৃৎশিল্প তৈরি করছে।

পরিবারের সদস্যরা বিভিন্ন স্থানে হাটে-বাজারে, দোকানে ও মেলায় অংশ নেয়ার জন্য আগে থেকেই তৈরি করে রাখত মাটির তৈরি হাঁড়ি-পাতিল, থালা-বাসন, ছোট ছোট পুতুল ও খেলনা। পরিবারের নারী সদস্যরা রঙের কাজে এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে।

আগে মৃৎশিল্পের দেশজুড়ে খ্যাতি ছিল কিন্তু আজকাল প্লাস্টিক, অ্যালুমিনিয়াম, চীনামাটি, মেলামাইন এবং বিশেষ করে সিলভারে রান্নার হাঁড়ি কড়াই প্রচুর উৎপাদন ও ব্যবহারের ফলে মৃৎশিল্প হারিয়ে যেতে বসেছে।

আরো জানা যায়, অতীতে এমন দিন ছিল যখন গ্রামের মানুষ দৈনন্দিন ব্যবহারে এই মাটির হাঁড়ি-পাতিল, কলসি, কড়াই, থালা-বাসন, মালশা ইত্যাদি মাটির তৈরি উপকরণ ব্যবহার করত। এক সময়ে পটিয়ার অলিরহাটের রুদ্রপাড়া (কুমার পাড়া) ছিল মাটির তৈরি পণ্যসামগ্রীর সমাহার। বিভিন্ন হাটে-বাজারে ছিল মাটির তৈরি হাঁড়ি-পাতিলসহ অন্যান্য সামগ্রীর দোকান। কিন্তু পটিয়ায় এখন কুমারদের আর হাঁড়ি-পাতিলের দোকান নেই। তারা বাড়িঘরে বানানোর পর সেখান থেকে ক্রেতারা এসে নিয়ে যায়।

অলিরহাটের রুদ্রপাড়া (কুমারপাড়া) র বাসিন্দা মৃৎশিল্প কারিগর রাখাল রুদ্র জানায়, তার বাপ-দাদারা যুগ যুগ ধরে এ পেশায় যুক্ত ছিল। বিভিন্ন জায়গা থেকে মাটি এনে নানা ধরনের ব্যবহার সামগ্রী বানাতো এবং তা হাটে-বাজারে বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করত। কিন্তু সময়ের পরিবর্তনের ফলে এসব পণ্য আজ হারিয়ে গেছে। প্লাস্টিক, অ্যালুমিনিয়াম, চীনামাটি, মেলামাইনসহ আধুনিক পণ্যসামগ্রী পাওয়ার পর মাটির তৈরি সামগ্রী আর কেউ নিতে চায় না, বিক্রিও তেমন হয় না। তদুপরি যে পরিমাণ মজুরি ও খরচ পড়ে সে অনুযায়ী দাম পাওয়া যায় না। আবার রয়েছে মাটির স্বল্পতা। নেই সরকারি-বেসরকারি পৃষ্ঠপোষকতা। এ কারণে এখানকার শতাধিক পরিবার এখন এ পেশা ছেড়ে দিয়েছে। মাত্র ৫-৬ পরিবার নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার জন্য কুমার সম্প্রদায়ের ঐতিহ্য ধরে রাখতে এ পেশাটি আঁকড়ে রয়েছে।

অলির হাটের কুমার পরিবারের সন্তান শিমুল রুদ্র জানায়, এক সময় পাড়ার অর্ধশতাধিক পরিবার এ পেশায় যুক্ত ছিল। তাদের ঘরে ঘরে মাটির ব্যবহার সামগ্রী তৈরি হতো। তখন অলির হাটেৱ আশপাশের এলাকায় হতো মেলা। মাঘ মাসে অনুষ্ঠিত এ মেলায় বছরে একবার তারা এসব পণ্য বিক্রি করে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করত। এখন মেলা না হওয়ায় মাটির জিনিস বিক্রি হয় না। তাই এ পেশায় টিকে থাকা যাচ্ছে না।

আজ বদলে যাওয়া পৃথিবীতে প্রায় সবই নতুন রূপ। নতুন সাজে আবার নতুনভাবে এ সামগ্রী মানুষের কাছে ফিরে এসেছে। শুধু গ্রামে নয় শহরের শিক্ষিত সমাজও মাটির জিনিস ব্যবহার করছে। তবে তা বিচিত্ররূপে। এখন মানুষের রুচি পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে নিত্যনতুন রূপ দিয়ে মৃৎশিল্পকে আকর্ষণীয় করে তোলার চেষ্টা করা হচ্ছে। 

গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্য কুমার শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে হলে বেশি বেশি মেলা বিভিন্ন স্থানে এসব পণ্যের প্রদর্শনী করা প্রয়োজন। তা ছাড়া ব্যাংক, ক্ষুদ্র ঋণের আওতায় সহজ শর্তে ঋণ প্রদান সহ সরকারি পৃষ্ঠপোষকতার মাধ্যমে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের আওতায় আনা দরকার।

রিটেলেড নিউজ

বান্দরবানে  সেনা জোনের ত্রাণ  বিতরণ

বান্দরবানে  সেনা জোনের ত্রাণ  বিতরণ

বান্দরবান প্রতিনিধি : :   বান্দরবানের সদর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে উপজাতি এবং বাঙালি সুবিধাবঞ্চিত মানুষের সেবায় রমজান...বিস্তারিত


পছন্দের ঈদের পোশাক না পেয়ে কিশোরীর আত্মহত্যা

পছন্দের ঈদের পোশাক না পেয়ে কিশোরীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক :   চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার বটতলী ইউনিয়নে ঈদে পছন্দের পোশাক না পেয়ে সায়মা আকতার (১৫) নামে এক ক...বিস্তারিত


বান্দরবানে  সেনা জোনের ত্রাণ বিতরণ 

বান্দরবানে  সেনা জোনের ত্রাণ বিতরণ 

বান্দরবান প্রতিনিধি : :   মানবতার সেবায় বান্দরবানে  অসহায় - সুবিধা বঞ্চিত মানুষের মাঝে  ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে বা...বিস্তারিত


হাটহাজারীতে ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার 

হাটহাজারীতে ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার 

হাটহাজারী প্রতিনিধি : : হাটহাজারীতে মো. জসিম উদ্দিন (৩৫) নামে এক কাপড় ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।  সোমবার (...বিস্তারিত


ডিম সংগ্রহের অপেক্ষায় হালদা পাড়ের জেলেরা

ডিম সংগ্রহের অপেক্ষায় হালদা পাড়ের জেলেরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : চলতি মাসের অমাবস্যা ও ভরা পূর্ণিমার যে কোনও সময়ে রুই, কাতলা, মৃগেল ও কালিবাউশ প্রজাতির মা মাছ ডিম ছা...বিস্তারিত


মামুনুল সমর্থকদের হামলায় আ.লীগ নেতা নিহতের ঘটনার প্রধান আসামি গ্রেফতার

মামুনুল সমর্থকদের হামলায় আ.লীগ নেতা নিহতের ঘটনার প্রধান আসামি গ্রেফতার

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি : : রাঙ্গুনিয়ায় বহুল আলোচিত আওয়ামী লীগ নেতা মহিবুল্লাহ হত্যা মামলার প্রধান আসামি মো. ইউনুছ মনি ওরফে ম...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

আসন্ন পটিয়া পৌর নির্বাচনে দল চাইলে মেয়র পদে প্রার্থী হবেন তৌহিদুল আলম

আসন্ন পটিয়া পৌর নির্বাচনে দল চাইলে মেয়র পদে প্রার্থী হবেন তৌহিদুল আলম

পটিয়া প্রতিনিধি : : বাংলাদেশ ফ্রেশ ফ্রুটস ইমপোর্টার্স এসোসিয়েশনের কেন্দ্রিয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক পটিয়া ...বিস্তারিত


আনোয়ারায় দলীয় কোন্দলের জেরে ছাত্রলীগ কর্মি হত্যাকাণ্ডে ফাসানো হচ্ছে নিরীহ পথচারীকে

আনোয়ারায় দলীয় কোন্দলের জেরে ছাত্রলীগ কর্মি হত্যাকাণ্ডে ফাসানো হচ্ছে নিরীহ পথচারীকে

আনোয়ারা প্রতিনিধি : : আনোয়ারায় দলীয় কোন্দলের জেরে ছাত্রলীগ কর্মি হত্যাকাণ্ডে ফাসানো হচ্ছে নিরীহ পথচারী মহিউদ্দিন ...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর