চট্টগ্রাম   শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১  

শিরোনাম

আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়সীমা বাড়ছে না,চট্টগ্রামে করদাতাদেও ভিড়

নিজস্ব প্রতিবেদক    |    ০৩:২১ পিএম, ২০২০-১১-২৯

আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়সীমা বাড়ছে না,চট্টগ্রামে করদাতাদেও ভিড়

 

আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়সীমা আর বাড়ছে না। সোমবরাই এর সময় শেষ হচ্ছে। এনবিআর চেয়ারম্যান বিষয়টি সাফ জানিয়ে দিলেন। এদিকে চট্টগ্রামে রিটার্ন দাখিলের জন্য করদাতারা ভিড় করেছেন কর ভবনে। 
রোববার সকালে ঢাকার সেগুনবাগিচায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম সময় না বাড়ার কথা জানিয়ে দিয়েছেন। 
তিনি বলেন, “আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় ৩০ নভেম্বর পর্যন্তই থাকবে, সময় বাড়ানোর কোনো সুযোগ নেই, সময় বাড়ানো হচ্ছে না।”
অর্থাৎ, যে করদাতারা এখনও আয়কর রিটার্ন জমা দেননি, তাদের সোমবারের মধ্যেই তা জমা দিতে হবে। তা না হলে গুণতে হবে জরিমানা।
প্রতিবছর ৩০ নভেম্বরই বিনা জরিমানায় আয়কর রিটার্ন দাখিলের শেষ দিন থাকে। অন্যবছর নাগরিকদের কর দিতে উৎসাহিত করতে কর মেলার আয়োজন করা হলেও করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে এবার সে আয়োজন হয়নি।
শীতের আগে আগে ভাইরাসের  প্রকোপ বাড়তে থাকায় এবং দেশের অর্থনীতির সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় রিটার্ন জমার সময় বাড়ানোর দাবি জানিয়ে এনবিআরে চিঠি দিয়েছিল ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই, আয়কর আইনজীবীসহ পেশাজীবীদের বিভিন্ন সংগঠন।
কিন্তু বিদ্যমান আয়কর অধ্যাদেশে রিটার্ন জমার সময় বাড়ানোর সরাসরি কোনো সুযোগ নেই। ফলে মহামারীর মধ্যে কীভাবে করদাতাদের একটু স্বস্তি দেওয়া যায়, সেই পথ খুঁজতে শুরু করেছিল জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।
এই প্রেক্ষাপটে রিটার্ন জমার সময় বাড়ানো হতে পারে বলে শনিবার ইংগিত এসেছিল এনবিআরের একাধিক কর্মকর্তারা কথায়। রোববার এনবিআর চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে ঘোষণা আসতে পারে বলেও তারা আভাস দিয়েছিলেন।

সে ঘোষণা না এলেও রিটার্ন দিতে বিলম্বের যৌক্তিক কারণ দেখাতে পারলে জরিমানা মওকুফ করা হবে বলে জানিয়েছেন আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম।    
তিনি বলেন, নির্ধারিত সময়ে যারা আয়কর রিটার্ন দিতে পারবেন না, তারা সংশ্লিষ্ট কর অফিসে আবেদন করতে পারবেন। নির্ধারিত সময়ে রিটার্ন জমা না দেওয়ার যৌক্তিক কারণ দেখাতে পারলে তার জরিমানা মওকুফ করা হবে। কমিশনারের কাছে যদি কারণ যৌক্তিক মনে না হয়, তবে তাকে জরিমানা দিতে হবে। আয়কর অধ্যাদেশের নিয়ম অনুযায়ী, কেউ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রিটার্ন দিতে না পারলে যৌক্তিক কারণ দেখিয়ে দুই থেকে চার মাস পর্যন্ত সময় বাড়িয়ে নিতে পারেন। সেজন্য নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হয়।
এদিকে আয়কর রিটার্ন দাখিলের জন্য শেষ মুহূর্তে ভিড় দেখা গেছে চট্টগ্রামের কর অঞ্চলগুলোতে।
আগ্রাবাদের সিডিএ আবাসিকের কর ভবনগুলোতে বিরাজ করে উৎসবমুখর পরিবেশ।  
সরেজমিন দেখা গেছে, বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার মানুষের রিটার্ন দাখিলের সুবিধার্থে মেলার আঙ্গিকে বুথ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বিনামূল্যে বিতরণ করা হচ্ছে ছাপানো রিটার্ন ফরম, চালান ইত্যাদি। লাইনে দাঁড়িয়ে একের পর এক করদাতা রিটার্ন ও  প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিচ্ছেন। কর অঞ্চলগুলোর পাশাপাশি ব্যস্ততা বেড়েছে কাছের সোনালী ব্যাংকের শাখাটিতেও।  
চট্টগ্রাম কর আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আনিসুর রহমান বলেন, শেষদিকে আয়করদাতার চাপ বেড়েছে। যারা নানা জটিলতা বা স্টেটমেন্ট সংগ্রহ করতে না পারায় রিটার্ন দাখিলে অপারগ তারা সময় চেয়ে আবেদন করছেন। সার্কেল থেকে দুই মাসের সময় দেওয়া হচ্ছে। এরপর প্রয়োজনে জোনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আরও দুই মাসের সময় দিতে পারবেন। কিন্তু যাদের টিন আছে সবাইকে রিটার্ন দাখিল করতে হবে। আমাদের সমিতির সদস্যরা করদাতাদের সর্বাত্মক সেবা দিচ্ছেন।
চট্টগ্রামের কর অঞ্চল-৪ এর কমিশনার ব্যারিস্টার মুতাসিম বিল্লাহ ফারুকী বলেন,  প্রতিটি কর অঞ্চলের মতো আমরাও ভবনের নিচে নির্দিষ্ট সার্কেলের জন্য বুথ করে দিয়েছি। তথ্যকেন্দ্র খুলেছি। যেখানে রিটার্ন ফরম, চালান, সময় বাড়ানোর আবেদন ইত্যাদি সরবরাহ করা হচ্ছে। বৈশ্বিক মহামারী করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় রিটার্ন দাখিল করতে আসা সম্মানিত করদাতাদের মাস্ক পরাটা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।
এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমরা করদাতাদের উদ্বুদ্ধ করছি। যারা সেরা করদাতা হয়েছেন তাদের ছবি টাঙিয়ে দিয়েছি। যাতে তারা কর অফিসে এলে সম্মানিত বোধ করেন এবং নতুন করদাতারা উদ্বুদ্ধ হন।  
তিনি জানান, করদাতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের আয়কর বিভাগের সক্ষমতাও বাড়ছে। আগামীতে বেশিরভাগ করদাতাই ঘরে বসেই অনলাইনে রিটার্ন দাখিল করতে পারবেন। এবার শুধু ঢাকার একটি কর অঞ্চলে অনলাইনে রিটার্ন দাখিলের সুযোগ দেওয়া হয়েছে।  
সোমবার (৩০ নভেম্বর) আয়কর দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম কর অঞ্চল-৪ এর কমিশনার কার্যালয়ে সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হলেও শোভাযাত্রা হবে না বলে জানা গেছে।

রিটেলেড নিউজ

২০২২ সালেই ঢাকা-কক্সবাজার ট্রেন চালু: রেলপথমন্ত্রী

২০২২ সালেই ঢাকা-কক্সবাজার ট্রেন চালু: রেলপথমন্ত্রী

ঢাকা অফিস : : রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন জানিয়েছেন, ২০২২ সালের ডিসেম্বরের মধ্যেই কক্সবাজার পর্যন্ত রেলল...বিস্তারিত


‘প্রধানমন্ত্রিত্ব আমার কাছে মানুষের জন্য কাজ করার সুযোগ’

‘প্রধানমন্ত্রিত্ব আমার কাছে মানুষের জন্য কাজ করার সুযোগ’

ঢাকা অফিস : : আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সরকার প্রধান শেখ হাসিনা বলেছেন, আমি প্রধানমন্ত্রী হয়ে বলেছিলাম, দেশের মানুষের ...বিস্তারিত


দিহান যৌনশক্তি বর্ধক ওষুধ সেবন করেছিলেন কিনা পরীক্ষার অনুমতি দিয়েছে আদালত

দিহান যৌনশক্তি বর্ধক ওষুধ সেবন করেছিলেন কিনা পরীক্ষার অনুমতি দিয়েছে আদালত

ঢাকা অফিস : : রাজধানীতে ‘ও’ লেভেল শিক্ষার্থী আনুশকাকে ধর্ষণের পর হত্যা মামলার আসামি ইফতেখার ফারদিন দিহান ধ...বিস্তারিত


অবশেষে বীর মুক্তিযােদ্ধা হারুন আল জাফর চৌধুরীর  নামে সড়কের নামকরণ

অবশেষে বীর মুক্তিযােদ্ধা হারুন আল জাফর চৌধুরীর  নামে সড়কের নামকরণ

আমাদের ডেস্ক : :  চট্টগ্রামের খানহাট-ধােপাছড়ি-বান্দরবান জেলা মহাসড়কের হাসিমপুর ইউনিয়ন অংশ পর্যন্ত ৩ কিলােম...বিস্তারিত


২৬ জানুয়ারি থেকে নিবন্ধন, ফেব্রুয়ারির শুরুতে টিকাদান

২৬ জানুয়ারি থেকে নিবন্ধন, ফেব্রুয়ারির শুরুতে টিকাদান

ঢাকা অফিস : : ২১ থেকে ২৫ জানুয়ারির মধ্যে যে কোনো একদিন বেক্সিমকোর মাধ্যমে দেশে করোনার টিকা আসবে। আর ২৬ জানুয়ারি ...বিস্তারিত


সাংবাদিক মিজানুর রহমান খান আর নেই

সাংবাদিক মিজানুর রহমান খান আর নেই

ঢাকা অফিস : : প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান খান মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। স...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

আসন্ন পটিয়া পৌর নির্বাচনে দল চাইলে মেয়র পদে প্রার্থী হবেন তৌহিদুল আলম

আসন্ন পটিয়া পৌর নির্বাচনে দল চাইলে মেয়র পদে প্রার্থী হবেন তৌহিদুল আলম

পটিয়া প্রতিনিধি : : বাংলাদেশ ফ্রেশ ফ্রুটস ইমপোর্টার্স এসোসিয়েশনের কেন্দ্রিয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক পটিয়া ...বিস্তারিত


আসন্ন পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বড় দুই দল সহ অনেকই মনোনয়ন দৌড়ে

আসন্ন পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বড় দুই দল সহ অনেকই মনোনয়ন দৌড়ে

মুহাম্মদ রুশনী মোবারক, পটিয়া : : আগামী নভেম্বর ২০২০ ইং মাস থেকে ধারাবাহিকভাবে নির্বাচনী কার্যক্রম শুরু হবে, চলবে জানুয়ারি-ফেব্রুয়...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর