ই-পেপার | শুক্রবার , ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
×

জনপ্রিয় ইউটিউবার অমিত মণ্ডল প্রাণ হারানোর আগে যা বলেছিলেন

অমিত মণ্ডল, বিশেষভাবে সক্ষম একজন ইউটিউবার এবং সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার। বুধবার পশ্চিমবঙ্গের ফ্রেজারগঞ্জে একটি মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনার মুখে পড়ে প্রাণ হারান। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ২২ বছর বয়সী এই যুবক তার দুই বন্ধুর সঙ্গে একটি স্কুটিতে চড়ে যাওয়ার সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে। গুরুতর জখম অবস্থায় অমিতকে কাছের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। গভীর রাতে অবস্থার আরও অবনতি হলে নিয়ে আসা হয় কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে।

তবে ডাক্তারদের সব রকম প্রচেষ্টা সত্ত্বেও বাঁচানো গেল না এই ইউটিউবারকে। বুধবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে মারা যান তিনি। অমিতের মর্মান্তিক মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত তার হাজার হাজার অনুরাগী।

মারা যাওয়ার আগে ইউটিউবে যে শেষ ভ্লগ পোস্ট করেছিলেন অমিত তাতে দেখা গিয়েছিল তিনি বন্ধুদের নিয়ে এসেছেন আলিপুর জেল মিউজিয়ামে। কারাগারে নিজেকে লেন্সবন্দি করে তাকে বলতে শোনা গিয়েছিল, ‘আমার ফাঁসি হবে! এখন কারাগারে বন্দি।’

নিজেকে কখনোই বিশেষভাবে সক্ষম ভাবতেন না তিনি। কখনও চাননি এটা তার পরিচয় হোক। ইউটিউবে অমিতের সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা চমকে দেওয়ার মতো বটে। ৩ লাখ ৯০ হাজার মানুষ ফলো করতেন অমিতকে। রোজনামচা থেকে জীবনের বিশেষ বিশেষ মুহূর্ত, সবটাই ভাগ করে নিতেন সকলের সঙ্গে।

নিম্নবিত্ত পরিবারেই বেড়ে ওঠা। অমিতের বাবা-মা স্থানীয় পৌরসভায় চুক্তিভিত্তিক কর্মী। তবে নানা আর্থিক জটিলতা সত্ত্বেও ছেলের স্বপ্নপূরণে সাহায্য করেছেন সব সময়। অমিতের এভাবে চলে যাওয়ায় ভেঙে পড়েছে তার পরিবার।