ই-পেপার | মঙ্গলবার , ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
×

কঙ্গোতে গির্জায় বোমা হামলায় নিহত ১০ আহত ৩৯

ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গো’র পূবাঞ্চলে একটি গির্জায় রোববার বোমা হামলায় অন্তত ১০ জন নিহত এবং ৩৯ জন আহত হয়েছে। ইসলামিক ষ্টেট জিহাদিরা এই হামলার দায় স্বীকার করেছে।

কঙ্গোর সামরিক মুখপাত্র অ্যান্টনি মুয়ালুশাই বলেছেন, উগান্ডা সীমান্তবর্তী শহর কাসিন্দির (নর্থ কিভু প্রদেশ) পেন্টেকোস্টাল গির্জায় এই ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ ঘটে। বিস্ফোরণে কমপক্ষে ১০ জন নিহত এবং ৩৯ জন আহত হয়েছে। তিনি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে মৃতের সংখ্যা জানানো হয় পাঁচজন।

তবে কঙ্গোতে উগান্ডার সামরিক অভিযান পরিচালনাকারি দলের মুখপাত্র বিলাল কাতাম্বা রোববার সন্ধ্যায় বলেছেন, বিস্ফোরণে ১৬ জন নিহত ও ২০ জন আহত হয়েছে। তিনি আরো বলেন, ‘আক্রমণকারীরা হামলা চালানোর জন্য একটি আইইডি ব্যবহার করেছিল এবং আমরা সন্দেহ করছি এডিএফ এ হামলার পিছনে রয়েছে।’ এএফপি নিহতের সংখ্যা নিশ্চিত করতে পারেনি।

কঙ্গোর যোগাযোগ মন্ত্রণালয় সোশ্যাল মিডিয়ায় বলেছে যে, আক্রমণটি স্পষ্টতই অ্যালাইড ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস (এডিএফ)- দ্বারা পরিচালিত হয়েছিল। গোষ্ঠীটিকে ইসলামিক স্টেট গ্রুপ মধ্য আফ্রিকায় তার সহযোগী হিসেবে দাবি করে।
ডিআরসি’র পূর্বাঞ্চলে ১২০ টিরও বেশি সশস্ত্র গোষ্ঠীর মধ্যে এডিএফ অন্যতম ভয়ঙ্কর গ্রুপ। সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে অনেকগুলি আঞ্চলিক যুদ্ধের উত্তরাধিকার যা শতাব্দীর শুরুতে বিশাল দরিদ্র দেশে ছড়িয়ে পড়ে।
এডিএফ’র বিরুদ্ধে হাজার হাজার কঙ্গোর নাগরিককে হত্যার ও উগান্ডায় বোমা হামলা চালানোর অভিযোগ রয়েছে। এডিএফ কর্মীরা অতীতে নর্থ কিভুর বিভিন্ন শহরে বোমা স্থাপন করেছিল।
বিশেষ পর্যবেক্ষণ গ্রুপ সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ জানায়, রোববার সন্ধ্যায়, ইসলামিক স্টেট গ্রুপ এই হামলার দায় স্বীকার করেছে । এই ঘটনায় প্রায় ২০ জন লোক নিহত হয়।
সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মুয়ালুশাই জানান, হামলার পর কেনিয়ার একজন সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।