শিরোনাম :

বাইডেনকে ‘ফিলিস্তিনি’ বললেন ট্রাম্প


২৯ জুন, ২০২৪ ৩:১৪ : অপরাহ্ণ

আন্তজার্তিক ডেস্ক :
মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ‘খুবই খারাপ ফিলিস্তিনি’ আখ্যা দিয়েছেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ট্রাম্পের দাবি, গাজায় হামাস নির্মূলে ইসরায়েলকে পর্যাপ্ত সহায়তা করতে চান না বাইডেন।

শুক্রবার (২৮ জুন) সকাল সাতটার দিকে জর্জিয়ায় সিএনএনের আটলান্টা স্টুডিওতে এক বিতর্ক অনুষ্ঠানে বাইডেনকে উদ্দেশ্য করে ট্রাম্প এ মন্তব্য করেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে আল-জাজিরা।

এটি ছিল বাইডেনের সঙ্গে ট্রাম্পের প্রথম প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্ক। তাদের এ বিতর্কে উঠে আসে হামাস ও ইসরাইলের যুদ্ধের বিষয়টি।

এতে সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, ইসরায়েলকে পর্যাপ্ত সহায়তা দিতে চান না বাইডেন। তিনি ফিলিস্তিনিদের মতো হয়ে গেছেন, কিন্তু তারা তাকে পছন্দ করে না, কারণ তিনি খুবই খারাপ ফিলিস্তিনি, তিনি দুর্বল।

ট্রাম্প অভিযোগ করেন, হামাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে ইসরায়েলকে বাইডেন পর্যাপ্ত সহায়তা দিচ্ছেন না। যে কারণে বাইডেনকে ‘খুবই খারাপ ফিলিস্তিনি’ হিসেবে অভিহিত করেন তিনি।

এ সময় ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় দখলদার ইসরায়েলের যুদ্ধ অব্যাহত রাখার পক্ষে কথা বলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এ সময় প্রেসিডেন্ট বাইডেন অভিযোগ করেন,ইসরায়েলের সঙ্গে হামাসই কোনো যুদ্ধবিরতি করছে না এবং হামাস চায় যুদ্ধ যেন অব্যাহত থাকে। যদিও ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু অসংখ্যবার বলেছেন, তিনি গাজায় স্থায়ী যুদ্ধবিরতি চান না।

বাইডেনের এমন বক্তব্যের পর ট্রাম্প বলেন, তিনি (বলছেন) হামাস চায় যুদ্ধ চলুক। আসলে ইসরায়েল চায় যুদ্ধ চলুক। তাদের যুদ্ধ চালাতে এবং কাজ সম্পন্ন করতে দিন।

বিতর্ক মঞ্চে ওঠার পর ২০২০ সালের মত প্রথা ভেঙে এবারও করমর্দন করেননি বাইডেন ও ট্রাম্প। এরপর সঞ্চালক দুজনকে বিতর্কের নিয়ম জানিয়ে দেন।

এদিকে ট্রাম্পের ‘খারাপ ফিলিস্তিনি’ শব্দের ব্যবহার বর্ণবাদী আচরণ বলে আখ্যা দিয়েছেন ফিলিস্তিনিদের জন্য আমেরিকান মুসলিমদের ডিরেক্টর আইয়া জিয়াদেহ।

আল জাজিরাকে তিনি বলেছেন, ‘খারাপ ফিলিস্তিনি; মন্তব্য খুব স্পষ্টভাবে বর্ণবাদী। ফিলিস্তিনিকে গালি হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে এখানে। এটা বর্ণবাদের গভীর উদাহরণ।

আরো সংবাদ